1. nasiralam4998@gmail.com : admi2017 :
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১২:৫৭ অপরাহ্ন

সাভার শিল্পাঞ্চলে অস্থিরতা: ৬০ পোশাক কারখানা বন্ধ, ১২ মামলা

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১২ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৩৭ বার

সরকার ঘোষিত ন্যূনতম মজুরি প্রত্যাখ্যান করে আন্দোলন করায় সাভারের আশুলিয়ায় রোববার (১২ নভেম্বর) ৬০টি পোশাক কারখানা বন্ধ রয়েছে। শনিবার (১১ নভেম্বর) এ বন্ধের সংখ্যা ছিল ১৩০টি।

এদিকে আশুলিয়ায় খোলা থাকা কারখানাগুলোর মধ্যে ৮-১০টিতে শ্রমিকরা সকালে এসে কার্ড পাঞ্চ করে কাজ না করে বসে ছিলেন। এ সকল কারখানার মধ্যে কিছু কারখানার শ্রমিকরা পরে কারখানা থেকে চলে যান। কাজ না করায় কয়েকটি কারখানায় রোববার (১২ নভেম্বর) সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

সকাল ১০টার দিকে আশুলিয়া শিল্প পুলিশ-১ এর পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ সারোয়ার আলম এ তথ্য জানান।

এদিকে গত কয়েক দিনে পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভ, ভাঙচুরের ঘটনার পর এখন পর্যন্ত আশুলিয়া থানায় ১২টি মামলা হয়েছে। এতে ১৬ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ৩ থেকে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার জনকে আসামি করা হয়েছে। ইতোমধ্যে ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সাভার সার্কেল) শাহিদুল ইসলাম বলেন, ভুক্তভোগী কারখানার কর্তৃপক্ষ এখন পর্যন্ত ১২টি মামলা করেছেন। এ সকল মামলায় ১৬ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে ৩ থেকে সাড়ে ৩ হাজার জনকে। ইতোমধ্যে ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সরেজমিন আশুলিয়ার জামগড়া, নরসিংপুর, নিশ্চিন্তপুর ও জামগড়া এলাকা ঘুরে দেখা যায় এ সকল এলাকার বেশ কিছু কারখানার ফটকে বাংলাদেশ শ্রম আইন ২০০৬ এর ১৩ (১) ধারা মোতাবেক অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে নোটিশ লাগানো রয়েছে। সড়কে সাজোয়াঁ যান নিয়ে টহল দিচ্ছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এর সদস্যরা। এ ছাড়া আশুলিয়া শিল্পাঞ্চল পুলিশ-১, ঢাকা জেলা পুলিশ ও র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) এর সদস্যদের বিভিন্ন এলাকায় টহল দিতে দেখা যায়। অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রস্তুত রাখা হয়েছে জলকামান। বেলা ১১টার দিকে জামগড়া ছয়তলা এলাকার এএম ডিজাইন লিমিটেডের সামনে বেশ কয়েকজন পোশাক শ্রমিককে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। মুঠোফোনে কারখানার ফটকের সামনে লাগানো বন্ধের নোটিশের ছবি মুঠোফোনে তুলে সহকর্মীদের পাঠিয়ে দিচ্ছেন তারা।

আশুলিয়া শিল্প পুলিশ-১ এর পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ সারোয়ার আলম বলেন, গতকাল (শনিবার) শুধু আশুলিয়ায় বাংলাদেশ শ্রম আইন ২০০৬ এর ১৩ (১) ধারা মোতাবেক অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ কারখানার সংখ্যা ছিল শতাধিক। ধামরাইসহ সাভার আশুলিয়ায় মোট কারখানা বন্ধ ছিল ১৩০টি। আজ শুধু আশুলিয়ায় ৬০টি কারখানা বন্ধ রয়েছে।

তিনি বলেন, ‘গতকাল থেকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকায় বন্ধ কারখানাগুলো খুলে দিচ্ছেন কারখানা কর্তৃপক্ষ। আশা করছি, পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে দ্রুতই অন্যান্য কারখানাও খুলে দেওয়া হবে।’  বেতন বৃদ্ধির দাবিতে গত ২৯ অক্টোবর থেকে সাভার, আশুলিয়ার শ্রমিকরা বিক্ষোভ শুরু করেন। গত ৭ নভেম্বর নুন্যতম মজুরি ১২ হাজার ৫০০ টাকা ঘোষণার পর ঘোষিত ন্যূনতম মজুরি প্রত্যাখ্যান করে বিক্ষোভ করতে থাকে শ্রমিকরা।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..