1. nasiralam4998@gmail.com : admi2017 :
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১২:১১ অপরাহ্ন

কিস্তির পণ্য ক্রেতাদের জন্য ওয়ালটনের বিশেষ উদ্যোগ,আর্থিক সহায়তা পেলো আরও ৩ পরিবার

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৯ মার্চ, ২০২৩
  • ১৭২ বার

ওয়ালটন প্লাজার ‘কিস্তি ক্রেতা ও পরিবার সুরক্ষা নীতির’ আওতায় বিশেষ আর্থিক সহায়তা পেয়েছে আরও তিনটি পরিবার। এসব পরিবারের বাকি কিস্তির টাকাও মওকুফ করেছে ওয়ালটন প্লাজা। সম্প্রতি পরিবারগুলোর তিন জন সদস্য মৃত্যুবরণ করায় এই সুবিধা পেয়েছে তাদের পরিবার।

পরিবারের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট ওয়ালটন প্লাজার আর্থিক সহায়তা গ্রহণ করেছেন কিশোরগঞ্জের মর্জিনা বেগম ও হাদিউল ইসলাম এবং বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার আল-আমিন।

উল্লেখ্য, কিস্তিতে পণ্য কেনা গ্রাহকদের জন্য ‘কিস্তি ক্রেতা ও পরিবার সুরক্ষা নীতি’ সুবিধা দিচ্ছে ওয়ালটন প্লাজা। এর আওতায় দেশের যেকোনও ওয়ালটন প্লাজা থেকে কিস্তিতে পণ্য ক্রয়কারীদের কিস্তি সুরক্ষা কার্ড দেওয়া হচ্ছে। কিস্তি চলমান থাকা অবস্থায় ক্রেতার মৃত্যু হলে পণ্যমূল্যের ভিত্তিতে ৫০ হাজার থেকে ৩ লাখ এবং তার পরিবারের কোনও সদস্য মৃত্যুবরণ করলে ২৫ হাজার থেকে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত সহায়তা দিচ্ছে ওয়ালটন প্লাজা। এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট পণ্যের অনাদায়ী কিস্তির টাকা সমন্বয়ের পর অবশিষ্ট টাকা ক্রেতা বা তার পরিবারকে দেওয়া হচ্ছে। এখন পর্যন্ত প্রায় ৩ ডজন ক্রেতাকে এই আর্থিক সহায়তা দিয়েছে ওয়ালটন প্লাজা।

 

৪ মাস বয়সের ছেলে মারা যাওয়ায় ওয়ালটন প্লাজা থেকে পাওয়া আর্থিক সহায়তার চেক গ্রহণ করছেন কিস্তি ক্রেতা হাদিউল ইসলাম

মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ওয়ালটন প্লাজা গাইটাল এবং কটিয়াদী উপজেলার মঠখোলা রোডের ওয়ালটন প্লাজায় পৃথক অনুষ্ঠানে ওয়ালটন প্লাজার আর্থিক সহায়তা গ্রহণ করেন যথাক্রমে মর্জিনা বেগম ও হাদিউল ইসলাম। এছাড়া এর আগের দিন সারিয়াকান্দি ওয়ালটন প্লাজায় আল-আমিনকে আর্থিক সহায়তা হস্তান্তর করে প্লাজা কর্তৃপক্ষ।

গাইটাল এবং কটিয়াদী ওয়ালটন প্লাজার আর্থিক সহায়তা হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মসূয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবু বকর সিদ্দিক, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আজমল হোসেন খান, মহিলা ইউপি সদস্য মোছা. লিজা, ওয়ালটনের ডেপুটি ডিরেক্টর সালেহ আহমেদ, ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর আতিকুর রহমান আতিক, গাইটাল প্লাজা ম্যানেজার মাহমুদুন্নবী ও কটিয়াদী প্লাজা ম্যানেজার জিয়াউর রহমান। এদিকে বগুড়ার সারিয়াকান্দি প্লাজার অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নারচী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলতাব হোসেন, ওয়ালটনের বগুড়া সাউথ জোনের রিজিওনাল ক্রেডিট ম্যানেজার এজাজুল ইসলাম ও স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহজাহান আলী।

কিশোরগঞ্জ সদরের কালাইহাটি গ্রামের বাসিন্দা মর্জিনা বেগম। তিনি জানান, মাত্র ৫ হাজার টাকা ডাউনপেমেন্ট দিয়ে ওয়ালটনের একটি স্মার্ট ফোন কিনেছিলেন ফেব্রুয়ারির ২৩ তারিখে। একটি কিস্তিও পরিশোধ করতে পারেননি তিনি। এরমধ্যে ২৮ তারিখে আকস্মিক হৃদরোগে তার স্বামী কৃষক বাবুল মিয়া মৃত্যুবরণ করেন। এর প্রেক্ষিতে তার কিস্তির টাকা মওকুফসহ ২৫ হাজার টাকার সহায়তা দিয়েছে ওয়ালটন প্লাজা। পরিবারের এই অসহায় অবস্থায় ওয়ালটন প্লাজা তাকে সহায়তা করায় কর্তৃপক্ষের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান মর্জিনা।

এদিকে, ঠিকাদারি ব্যবসা করেন কটিয়াদীর আষ্টঘরিয়া গ্রামের হাদিউল ইসলাম। চলতি বছরে জানুয়ারির ৩ তারিখে কিস্তিতে ২১৩ লিটারের একটি ফ্রিজ কেনেন তিনি। সম্প্রতি ৪ মাস বয়সের তার এক ছেলে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। ওয়ালটন প্লাজা তার কিস্তিও মওকুফ করে দেয়। তাকেও দেওয়া হয় ২৫ হাজার টাকার আর্থিক সহায়তা।

তিনি বলেন, ওয়ালটনের কিস্তি ক্রেতা সহায়তা নীতি একটি বিস্ময়কর ব্যাপার। চার মাস বয়সী সন্তান মারা যাওয়াতেও কিস্তি মওকুফ করে আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন ওয়ালটন প্লাজা। এটা অবিশ্বাস্য। এসব সামাজিক কার্যক্রমের মাধ্যমেই ওয়ালটন ক্রেতাদের মন জয় করে নিয়েছে।

 

পিতার মৃত্যুতে রাজমিস্ত্রি আল-আমিনকে ওয়ালটন প্লাজার আর্থিক সহায়তার চেক তুলে দিচ্ছেন

 

স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ এবং ওয়ালটন প্লাজার কর্মকর্তারা

এদিকে, ওয়ালটন প্লাজার ৫০ হাজার টাকার আর্থিক সহায়তা গ্রহণ করেছেন নারচী ইউনিয়নের কুপতলা গ্রামের রাজমিস্ত্রি আল-আমিন। তিনি জানান, তার বাবা হোটেলের বাবুর্চি মুকুল মিয়া সারিয়াকান্দি প্লাজা থেকে গত বছরের ৩০ নভেম্বর ২৪৪ লিটারের একটি ফ্রিজ কেনেন। চলতি বছরের ৩ মার্চ স্ট্রোকে মারা যান আল-আমিনের বাবা। ক্রেতার মৃত্যুতে কিস্তি মওকুফ করে উল্টো আর্থিক সহায়তা প্রদান করায় অবাক আল-আমিন। ওয়ালটন প্লাজা থেকে পাওয়া আর্থিক সহায়তার টাকা পরিবারের কাজে ব্যয় করবেন বলে জানান এই রাজমিস্ত্রি।

আর্থিক সহায়তা হস্তান্তর অনুষ্ঠানে নারচী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলতাব হোসেন বলেন, কিস্তি ক্রেতা সহায়তা নীতি ওয়ালটনের একটি মহৎ উদ্যোগ। দেশ ও মানুষের সেবায় মানবিক দিক বিবেচনায় ওয়ালটনের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান তিনি। ওয়ালটন পণ্যের গুণগত মান ও সার্ভিস সংক্রান্ত বিষয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে সকলকে দেশীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবে ওয়ালটন পণ্য ব্যবহারের পরামর্শ দেন আলতাব হোসেন। সে সময় অন্যান্য দেশীয় প্রতিষ্ঠানকেও এ ধরনের সামাজিক কার্যক্রমে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান এই স্থানীয় জনপ্রতিনিধি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..