1. nasiralam4998@gmail.com : admi2017 :
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:০৫ পূর্বাহ্ন

সোনিয়া আক্তার স্মৃতিকে গ্রেপ্তার প্রক্রিয়া একাত্তরের হানাদার বাহিনীর বর্বরতার সমতুল্য-মির্জা ফখরুল

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর, ২০২২
  • ১০০ বার
সোনিয়া আক্তার স্মৃতি

 

ছবিঃ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

রাজবাড়ী জেলার ব্লাড ডোনার্স ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং জেলা মহিলা দলের সদস্য সোনিয়া আক্তার স্মৃতিকে গ্রেপ্তারের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার (৫ অক্টোবর) মধ্য রাতে বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ মুনির হোসেন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ নিন্দা জানান তিনি।

বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, দেশে এখন কোনো মানুষেরই নিরাপত্তা নেই। সোনিয়া আক্তার স্মৃতি একজন অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট হিসেবে সত্য উচ্চারণ করেছেন। আর সে কারণেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাকে গ্রেপ্তার করেছে। অন্যায়ের বিরুদ্ধে মুখ খুললেই সরকার বিচলিত হয়ে পড়ে। তার বড় কারণ হচ্ছে- সব অন্যায় ও অপকর্মের হোতাই হচ্ছে বর্তমান সরকার।

মির্জা ফখরুল বলেন, সোনিয়াকে পুলিশ যেভাবে গ্রেপ্তার করেছে তা অমানবিক। এটি একটি নজিরবিহীন ঘটনা। গভীর রাতে তার বাসায় পুলিশ হানা দিয়েছে, যা একাত্তরের হানাদার বাহিনীর বর্বরতার সমতুল্য। সোনিয়া বারবার মিনতি করে বলেছেন ‘আমার দুটি ছোট বাচ্চা আছে, আপনারা এত রাতে আসছেন কেন? গ্রেপ্তার করলে দিনে আসুন’। এরপরও পুলিশ কোনো কথা শোনেনি। সন্ত্রাসী কায়দায় তাকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে গেছে।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে নারীর ওপর এহেন আচরণ কুৎসিত দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। দেশে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় অবিচার ও অন্যায় চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। আইন রক্ষকরাই এখন ভক্ষকে পরিণত হয়েছে। অবিলম্বে সোনিয়া আক্তার স্মৃতির বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারসহ তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানাই।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তির অভিযোগে সোনিয়া আক্তার স্মৃতিকে গ্রেপ্তারে করে পুলিশ। রাজবাড়ী জেলা বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সদস্য সচিব সামসুল আরিফিন চৌধুরী তার বিরুদ্ধে মামলা করেন।

এদিকে, মামলার বাদী সামসুল আরিফিন চৌধুরী জানান, ২৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিনে সোনিয়া আক্তার স্মৃতি তার ফেসবুক আইডি থেকে একটি বিতর্কিত পোস্ট দেন। এর আগেও ৩১ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তি করে আরেকটি পোস্ট দিয়েছিলেন স্মৃতি। আওয়ামী লীগের একজন কর্মী হিসেবে এই পোস্ট আমাকে ব্যথিত করেছে। যে কারণে সোমবার (৩ অক্টোবর) রাজবাড়ী সদর থানায় স্মৃতির নামে অভিযোগ করি। যা বুধবার (৫ অক্টোবর) মামলা হিসেবে রেকর্ড হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..